সেন্টমার্টিনে পর্যটকবাহী স্পিডবোড ডুবির ঘটনায় জীবিত উদ্ধার ২৩

0 ১০৪

কক্সবাজারে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটের নাইক্ষ্যংদিয়া পয়েন্টে স্পিডবোট উল্টে সাবেক সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও ভাসমান অবস্থায় পর্যটকসহ ২৩ জনকে উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড। উদ্ধার হওয়াদের নাম ও পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

টেকনাফের ইউএনও মো. আদনান চৌধুরী জানান, শুক্রবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টায় টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটের নাফ নদীর নাইক্ষ্যংদিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত ফিরোজা বেগম (৫৫) টেকনাফ উপজেলার সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত সাবেক নারী ইউপি সদস্য। নিহতের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন টেকনাফের ইউএনও।

উদ্ধার হওয়াদের মধ্যে ১৭ জন পর্যটক ও ৫ জন স্থানীয় বাসিন্দা। এছাড়া অপর দুইজন স্পিডবোটের চালক ও সহকারী।

স্থানীয় জেলে ও উদ্ধার হওয়াদের বরাতে আদনান চৌধুরী বলেন, শুক্রবার দুপুর সোয়া ১২টায় টেকনাফ থেকে পর্যটকসহ ২২ জন যাত্রী নিয়ে একটি স্পিডবোট সেন্টমার্টিনের উদ্দ্যেশে রওনা দেয়। স্পিডবোটটি নাফ নদীর নাইক্ষ্যংদিয়া পয়েন্টে পৌঁছলে বড় ঢেউয়ের আঘাতে স্পিডবোটটির তলা ফুটো হয়ে উল্টে যায়। এতে বোটে থাকা যাত্রীরা পানিতে ভাসতে থাকে।

ইউএনও আরও বলেন, খবর পেয়ে কোস্টগার্ডের একটি দল এবং স্থানীয় জেলের ঘটনাস্থলে পৌঁছে নদীতে ভাসতে থাকা লোকজনকে উদ্ধার করে। পরে তাদের সেন্টমার্টিনের উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক এক নারীকে মৃত ঘোষণা করেন। উদ্ধার অন্যদের সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

রিপ্লাই করুন

Your email address will not be published.