‘সন্দেহের জের ধরে স্ত্রী ও মেয়েকে হত্যা করে জেমিন 

0 ৯০

কলাতলী হোটেল মোটেল জোনে অবস্থিত সী আলিফ হোটেলে স্ত্রী সুমা দে ও এক বছর বয়সী কন্যা শিশুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে স্বামী জেমিন বিশ্বাস ওরফে দুলাল। স্ত্রীর প্রতি সন্দেহের জের ধরে পরিকল্পিতভাবে এ হত্যার ঘটনাটি সংগঠিত করা হয়। নিহতের ভাই বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছে কক্সবাজার সদর মডেল থানায়।

আজ শনিবার বিকাল ৫ টায় কক্সবাজার সদর থানায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন, কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. রফিকুল ইসলাম।

রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, জেমিন বিশ্বাস চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের বানীগ্রামের দুলাল বিশ্বাসের ছেলে। গত ৩ মাস আগে ওমান গিয়ে গত ৫ ফেব্রæয়ারি দেশে ফিরেন জেমিন। নানা কারণে স্ত্রীর প্রতি সন্দেহ এবং ছোট্ট মেয়ের পিতৃত্ব নিয়ে সন্দেহের জের ধরে এ হত্যাকান্ড সংগঠিত করেছে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে জেমিন। জেমিন জানিয়েছে ১৬ ফেব্রুয়ারী সকালে বড় ২ মেয়েকে নাস্তার কথা বলে নিচে নামিয়ে স্ত্রীকে শ্বাস রোধ করে হত্যার পর এক বছর বয়সী  মেয়েকে পানিতে ডুবিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করা। এরপর ২ মেয়ে নিয়ে পালিয়ে যায় সে।

এএসপি জানান, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে জেমিনকে শুক্রবার রাতে গ্রেপ্তারের পর কক্সবাজার আনা হয়েছে।

চট্টগ্রাম বাকলিয়া থানা এলাকার শাহ আমানত সেতু সংলগ্ন মার্শা পরিবহন সার্ভিসের কাউন্টারের সামনে থেকে জেমিনকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে এর আগে জানিয়েছেন চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানার ওসি মো. আব্দুর রহিম।

নিহত সুমা দে বাঁশখালী উপজেলার নাথপুরা এলাকার শচীন্দ্র দে’র মেয়ে। সুমার কোন নিকটাত্মীয় নেই আর জেমিনের খালাত বোনের স্বামী সৈকত দাশ ময়নাতদন্ত শেষে ২ জনের মরদেহ গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. রফিকুল ইসলাম। 
কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম পিপিএম জানিয়েছেন, নিহত সুমা দেব এর দুই কন্যা বর্তমানে পুলিশ হেফাজত রয়েছে। তাদের সাথে তাদের দাদী ও রয়েছে।
একই সাথে এ ব্যাপারে শনিবার সন্ধ্যায় কক্সবাজার মডেল থানায় নিহতের মামা প্রিয় রঞ্জন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেও বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

শুক্রুবার দুপুর আড়াইটায় কক্সবাজার শহরের কলাতলী এলাকার আবাসিক হোটেল সি আলিফ এর ৪১১ নম্বর কক্ষ থেকে মা-মেয়ের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

কক্সবাজারে হোটেলে মা মেয়ে খুন 

গোলাম আজম খান,  কক্সবাজার অফিস  ১৮ ফেব্রুয়ারী। 

রিপ্লাই করুন

Your email address will not be published.