শাহপরীর দ্বীপে মোখায় ক্ষতিগ্রস্ত হাজার পরিবার পেল বসুন্ধরার সহায়তা

0 ৬২

নিজস্ব প্রতিবেদক,

কক্সবাজারের টেকনাফে শাহপরীর দ্বীপে দ্বিতীয় দফায় ঘূর্ণিঝড় মোখায় ক্ষতিগ্রস্ত আরও এক হাজার পরিবার পেল দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্প প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের নগদ অর্থ সহায়তা।

শনিবার (০৩ জুন) দুপুরে শাহপরীর দ্বীপ বাজারপাড়ার সরকারবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির মাঠে দ্বীপের এক হাজার পরিবারকে চার হাজার টাকা করে মোট ৪০ লাখ টাকা নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়।

ঘূর্ণিঝড় মোখার আঘাতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপ। এখানে তিনটি ওয়ার্ডে বসবাস করেন ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ। এর মধ্যে আট হাজারের বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাদের বেশিরভাগ ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।

ঝড়-পরবর্তী সময়ে দুর্দশায় দিনাতিপাত করা দ্বীপবাসীর পাশে দাঁড়িয়েছেন বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান।

শাহপরীর দ্বীপ ৮ নম্বর ওয়ার্ড কোনারপাড়ার বাসিন্দা তৈয়বা খাতুন বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড়ে বাড়িঘর হারিয়ে খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছি। ছেলে-মেয়েদের নিয়ে অনেক কষ্ট পাচ্ছি। এমন দুঃসময়ে আমার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপ। আমার দুঃখ-দুর্দশার কথা শুনে তারা আমাকে নগদ অর্থ সহায়তা দিলেন। এতে অনেক উপকার হয়েছে। আল্লাহ বসুন্ধরা গ্রুপকে গরিব-দুঃখীদের আরো বেশি সহায়তা করার তৌফিক দিন। ’

৯ নম্বর ওয়ার্ড বাজারপাড়ার বাসিন্দা মোহাম্মদ হোসেন বলেন, ‘এর আগেও বসুন্ধরাগ্রুপ আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। তাদের দেওয়া সাহায্য-সহযোগিতা আমাদের অনেক উপকারে আসে। দুঃসময়ে এভাবে পাশে দাঁড়ানো বসুন্ধরা গ্রুপের ঋণ কোনোদিন শোধ করতে পারবো না। আল্লাহর কাছে তাদের বরকতের জন্য দোয়া করি। ’

এর আগে গেল ২৭ মে শাহপরীর দ্বীপের মোখায় ক্ষতিগ্রস্ত ২৫০ পরিবারকে বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে আট হাজার টাকা করে ২০ লাখ টাকা নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়া হয়।

বসুন্ধরা গ্রুপের নগদ অর্থ সহায়তা প্রদানের সময় ইয়াহিয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইয়াহিয়া, মো. আয়ুবুল ইসলামসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

রিপ্লাই করুন

Your email address will not be published.