রোহিঙ্গা কিশোরকে অপহরণের পর যে কাণ্ড ঘটাল অপহরণকারীরা

0 ৫৬

টেকনাফ প্রতিনিধি,

কক্সবাজারের টেকনাফের আলীখালী ২৫নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি ২২ ব্লকের শামসুল আলমের ছেলে জাহাঙ্গীরকে (১৬) শরীর থেকে হাত কেটে মা-বাবার কাছে পাঠিয়েছেন অপহরণ চক্রের সদস্যরা।

শনিবার রাতে হ্নীলা ইউনিয়নের আলীখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে জাহাঙ্গীরকে রাতেই এনজিও সংস্থার আইআরসি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ক্যাম্পে বসবাসরত রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, শুক্রবার সন্ধ্যায় ২৫নং ক্যাম্পের ডি ব্লকের একটি দোকানে গল্প করার সময় পশ্চিমের পাহাড়ে অবস্থানরত ২০-২৫ জনের একটি দুর্বৃত্ত দল হঠাৎ অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৫ জনকে অপহরণ করে। পরে অপহরণকৃতদের কেন্দ্র করে পাহাড়ে থাকা দুর্বৃত্তদের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থল থেকে একজন পালিয়ে আসতে সক্ষম হয়।

বাকি চারজনকে আটকে রেখে অমানসিক নির্যাতন চালাতে থাকে। এদের মধ্যে প্রথমে জাহাঙ্গীরের পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবি করলে তা দিতে অস্বীকার করায় তার হাত কেটে বাড়িতে পাঠানো হয়।

তবে এখনো এই ক্যাম্পের নূর হোসেনের ছেলে মো. ইউনুস (৩২), মো. রফিকের ছেলে মো. সুলতান (২৪), আব্দুর রহমানের ছেলে আব্দুল্লাহ (১৬) ও মো. সৈয়দের ছেলে আনোয়ার ইসলাম (১৮) অপহরণকারী চক্রের কাছে বন্দি বলে জানা গেছে।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি আবদুল হালিম জানান, ঘটনা শোনামাত্রই টেকনাফ থানা পুলিশ ও ক্যাম্পে দায়িত্বরত এপিবিএনের একাধিক টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে অপহরণ হওয়া রোহিঙ্গাদের উদ্ধারে চেষ্টা করছে পুলিশ।

রিপ্লাই করুন

Your email address will not be published.