’বড় হুজুর’কে কাছে পেয়ে ইমাম মুসলিমে (রহ:) শিক্ষার্থীদের প্রাণভরা উচ্ছ্বাস

0 ২৩৮

নিজস্ব প্রতিবেদক,

সৌদিআরবে একাডেমিক সফর ও উমরাহ পালন শেষে জামিয়াতুল ইমাম মুসলিমে (রহ:) ফিরলেন প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক সালাহুল ইসলাম।

তিনি মঙ্গলবার (২১ শে মার্চ) সন্ধায় ইমাম মুসলিম (রহঃ) প্রাঙ্গনে এসে পৌঁছালে জামিয়ার সমস্ত শাখার শিক্ষক ও এতিম ছাত্র/ছাত্রীরা তাদের অভিভাবককে কাছে পেয়ে জড়িয়ে ধরেন। এই সময় পুরো ক্যাম্পাসে উপস্থিত ছাত্র ও শিক্ষক সকলেই অশ্রুসজল নয়নে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। প্রায় দুই মাসের অধিক সময়ের পরে প্রাণপ্রিয় শায়খ, অজস্র এতিমের অভিভাবককে জামিয়ার প্রাঙ্গনে ফিরে পেয়ে হাসিখুশীতে প্রাণভরা উচ্ছ্বাসে ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষক মন্ডলীগণ।

দীর্ঘদিন পরে জামিয়াতুল ইমাম মুসলিম (রহ) প্রতিষ্ঠিতা পরিচালক  অভিভাবকের দেখা পেয়ে উচ্ছাস ধরে রাখতে পারেনি বেশীরভাগ শিক্ষার্থীরা।
তাদের বড় হুজুর সালাহুল ইসলামও প্রাণপ্রিয় ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে পেয়ে আবেগ আপ্লুত।

গত ১৬ জানুয়ারি তিনি সস্ত্রীক ও মেঝ ছেলে সাইদ নিজামীসহ জামিয়াতুল ইমাম মুসলিম (রহঃ) এক্যাডেমিক কাজে সৌদিআরবে সফরে যান।

দীর্ঘ ১০ বছরেরও অধিক সময়ের পর সালাহুল ইসলাম বিদেশ সফর করেন এবং তার পরিচালিত দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়ুয়া শত শত দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত ছাত্র-ছাত্রীদের সম্পূর্ণ বিনা খরচে সৌদি আরবে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ সন্ধানে  জগৎবিখ্যাত জামিয়ার সফর করেন।

সৌদি আরবে সফররত জামিয়াতুল ইমাম মুসলিম (রহ) ছাত্ররা যাতে বহির্বিশ্বে ও বিভিন্ন নামি-দামি ইসলামি শিক্ষার সুযোগ লাভ নানান উদ্যোগ নেয়া হয়। অত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গরীব ও মেধাবী ছাত্ররা ধারাবাহিকভাবে আন্তর্জাতিকীকরণের পথে অগ্রসর হওয়ার অংশ হিসেবে সম্প্রতি সৌদি আরবের বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সাথে ঐকমত্যের ভিত্তিতে একাডেমিক আলোচনা করেন।
সফরকালে সালাহুল ইসলাম মক্কা, কাসিম ও মদিনা অঞ্চলে অবস্থিত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধানদের সাথে তার পরিচালিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের সহযোগিতার ঐকমত্য পোষণ করেন। 

রিপ্লাই করুন

Your email address will not be published.