পেকুয়া চুলার আগুনে বসতবাড়ীসহ তিনটি দোকান পুড়ে ভস্মীভূত

0 ১০৬

দেলওয়ার হোসাইন, পেকুয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় চুলার আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত হয়েছে বসতবাড়িসহ আরও তিনটি দোকান। এতে আনুমানিক ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও ব্যবসায়ীরা। উপজেলার সদর ইউনিয়নের পেকুয়ায় বাজারের পশ্চিম পাশে ভোলাইয়াঘোনা স্টেশন এলাকায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সোয়া ২টার দিকে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটে। স্থানীয়রা জানান , ফয়েজ আহমেদ নামের এক ব্যক্তির রান্নাঘরের চুলার আগুন থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ঘটে। মুহূর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় তার বসতঘরসহ পাশের তিনটি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পরে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে পেকুয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। স্থানীয় প্রতিবেশি ইব্রাহিম জানান,একই বসতঘরে তিন পরিবার থাকতেন। ফয়েজ আহমেদ ৭০ বছরের একজন বৃদ্ধ। ঠান্ডার কারণে তিনি রান্নাঘরের চুলায় আগুন পোহাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে অসতর্কতার কারণে আগুনের লেলিহান শিখা ঘরসহ আশপাশের তিনটি দোকানে ছড়িয়ে পড়ে।তিনি আরও জানান,আগুন সুত্রপাত হওয়া বাড়ীর বিপরীত পাশে আমার দোকান ও বসত বাড়ী,প্রথম আগুন দেখতে পেয়ে সবাইকে ডাকাডাকি করে আগুন নিভানোর চেষ্টা করি,সাথে পেকুয়া ফায়ার সার্ভিসকে ফোন দিয়।দোকান গুলো মধ্যে সাহেদের মুদির দোকান, মিজানুর রহমান মিয়ার মুদির দোকান ও কুলিং কর্ণার ও হারাধন হিরু নামে একজনের সেলুন দোকান ছিল। খবর পেয়ে পেকুয়া সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান বাহাদুর শাহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে শুকনো খাবার ও আর্থিক সহায়তা দেন।

রিপ্লাই করুন

Your email address will not be published.