চকরিয়ায় বিজিবির বাস-লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ৩ জনের মৃত্যু

0 ৬৭

চকরিয়া প্রতিবেদক,

কক্সবাজারের চকরিয়ায় বিজিবির একটি বাস ও লেগুনা গাড়ীর মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় আহত আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে; এতে দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো তিনজনে।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনায় আহত অনন্ত ৫ জন বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

চকরিয়ার চিরিঙ্গা হাইওয়ে থানা পুলিশের পরিদর্শক ইমন চৌধুরী জানান, শনিবার সকাল সাড়ে ৮ টায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের কলাতলী জিলানী পুকুর পাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহতরা হল- চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের করমুহুরীপাড়ার মৃত জানু মিয়ার ছেলে নজরুল ইসলাম (৩৪) এবং একই ইউনিয়নের উত্তর হারবাং কলাতলী এলাকার আবুল বশরের ছেলে মো. হামিদুল্লাহ (২৯) ও একই এলাকার লাল মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩০)।

তবে আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার তথ্য জানালেও তাদের নাম ও পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেননি তিনি।

হতাহতরা সকলেই লেগুনা গাড়ীর যাত্রী ছিলেন।

স্থানীয়দের বরাতে ইমন চৌধুরী বলেন, শনিবার সকালে চকরিয়ার হারবাং ইউনিয়নের কলাতলী জিলানী পুকুর পাড় এলাকায় কক্সবাজারমুখি বিজিবির একটি বাসের সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা আমিরাবাদগামী লেগুনা গাড়ীর মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে আহত হয়েছে অনন্ত ৮ জন। পরে স্থানীয়রা আহতদের মধ্যে ছয়জনকে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং অপর দুইজনকে নিকটবর্তী লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

” এসময় চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা দুইজনকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে সেখানে আনা ২ জনকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) প্রেরণ করেন। আহত অপর দুইজন লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ী দুইটি পুলিশ জব্দ করেছে। “

পরিদর্শক জানান, দুপুর ১ টায় আহত দুইজনকে চকরিয়া থেকে চমেকে নেওয়ার পথে জাহাঙ্গীর আলম নামের একজন মারা যান। 

আবেদনের প্রেক্ষিতে নিহতদের লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়া স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান ইমন চৌধুরী।

রিপ্লাই করুন

Your email address will not be published.