আচরণ-বিধি শতভাগ পালনে নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের

0 ৬৫

নিজস্ব প্রতিবেদক,

কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে কোন প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচরণ-বিধি লংঘণের অভিযোগ পাওয়া গেলে কঠোরতর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে সতর্কতামূলক নির্দেশনা দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মো. আহসান হাবিব খান।

শনিবার বেলা ১২ টায় কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরী ও ইন্সটিটিউটের শহীদ সুভাষ হলে জেলা প্রশাসন ও জেলা নির্বাচন কার্যালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত “পৌরসভা সাধারণ নির্বাচন-২০২৩ উপলক্ষে প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীগণের উপস্হিতিতে আচরণ-বিধি প্রতিপালন বিষয়ক মতবিনিময় সভায়” তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীদের উদ্দ্যেশ করে কমিশনার আহসান হাবিব খান বলেন, নির্বাচন কমিশনের আচরণ-বিধি সকলে শতভাগ পালন করবেন। যারা পালন করবে না বিরুদ্ধে কঠিন থেকে কঠিনতর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

“ এখন তো প্রত্যেকের হাতে মোবাইল ফোন, মোবাইল ক্যামেরা ও রেকর্ডার হয়েছে। আপনারা ভিডিও, ছবি ও অডিও রেকর্ডসহ তথ্য-প্রমান জমা দেন, আমরা দায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবো। “

সম্প্রতি গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে জনৈক প্রার্থীর বিরুদ্ধে আচরণ-বিধি লংঘণের অভিযোগে প্রার্থিতা বাতিলের উদাহরণ তুলে ধরে নির্বাচন কমিশনার বলেন, “ আচরণ-বিধি লংঘণের যার বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া যাবে, তিনি যত প্রভাবশালী প্রার্থী হোক না কেন নির্বাচন কমিশন ব্যবস্থা নিতে কার্পণ্য করবে না। “

আহসান হাবিব খান বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নেওয়ার ১ বছর ৩ মাস পূর্ণ হয়েছে। এই সময়ে কমিশন ৭০০ চির বেশী নির্বাচন সম্পন্ন করেছে। অনুষ্ঠিত এসব নির্বাচন নিয়ে কেউ কোন প্রশ্ন তুলতে পারেনি। তাই কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনও অনুষ্টিত হবে সবধরণের বিতর্কের ঊর্ধ্বে ।

জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ শাহীন ইমরানের সভাপতিত্বে অনুষ্টিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম অজ্ঞলের আজ্ঞলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান ও জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম।

এতে মতামত ব্যক্ত করেন আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো. মাহাবুবর রহমান চৌধুরী ও বিদ্রোহী প্রার্থী মাসেদুল হক রাশেদ , স্বতন্ত্র প্রার্থী জগদীশ বড়ুয়াসহ ৪ জন কাউন্সিলর প্রার্থী।

এসময় তারা পরস্পরের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণ-বিধি লংঘণের অভিযোগ তুলেন।

রিপ্লাই করুন

Your email address will not be published.